বিপদ-আপদে সান্তনা

৳ 20.00

লেখক: হযরত মুফতী মনসূরুল হক দামাত বারাকাতুহুম।

Category:

Description

বালা মুসীবত ও বিপদ আপদে মানুষ ঈমান সম্পর্কীয় পর্যাপ্ত ইলম ও ইয়াক্বীন না থাকায় অনেক সময় ধৈর্যহীন হয়ে এমন কথা বলে ফেলে বা এমন কাজ করে বসে, যাতে তার ঈমান বিনষ্ট হয়ে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায় এবং পিছের যিন্দেগীর সকল ইবাদত বন্দেগী বরবাদ হয়ে যায় । এ সমস্যা থেকে বাঁচার লক্ষ্যে বক্ষ্যমাণ পুস্তিকায় বিপদ আপদ ও বালা মুসীবতের ব্যাপারে কুরআন ও হাদীসে যে সকল সান্তনাবাণী ও পুরষ্কারের ঘোষণা করা হয়েছে তার থেকে সামান্য কিছু বর্ণনা তুলে ধরা হয়েছে। যাতে করে বিপদে সান্ত্বনা লাভ ও ধৈর্য ধারণ সহজ হয় এবং দুঃখ কষ্টের ভেতরে আল্লাহ তা‘আলা যে অসংখ্য সাওয়াব ও ফযীলত রেখেছেন, তা অনুধাবন করে সেটাকে যেন আমরা আল্লাহর বিশেষ এক ধরনের নিয়ামত মনে করতে পারি।

আল্লাহ তা‘আলা সমগ্র বিশ্বের মালিক; আমাদের জান-মাল, বিষয়-সম্পদ, পিতা-মাতা, স্ত্রী-সন্তান সব কিছুই আল্লাহ তা‘আলার মালিকানা। আমরা যে মালিকানা দাবী করি তা ঠিক নয়। কারণ, আমাদের অস্থায়ী মালিকানাটুকুও জান্নাতের বিনিময়ে আমরা আল্লাহর নিকট বিক্রি করে দিয়েছি। আল্লাহ তা‘আলা তাঁর মালিকানার মধ্যে আমাদের মঙ্গলের জন্য যে কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার অধিকার রাখেন; তাঁর সিদ্ধান্তের ব্যাপারে আপত্তি করার বা প্রশ্ন তোলার কেউ কোন প্রকার অধিকার রাখে না। আল্লাহ তা‘আলার সিদ্ধান্তের ব্যাপারে মনক্ষুন্ন হওয়া বা অভিযোগ করা কুফরি কাজ, এতে ঈমান নষ্ট হয়ে যেতে পারে। বান্দার দায়িত্ব এতটুকু যে, আল্লাহ তা‘আলার সিদ্ধান্ত তার মনের অনুকূলে হলে সে আল্লাহর হামদ ও শোকর আদায় করবে। আর যদি আল্লাহর কোন সিদ্ধান্ত তার মনের বিরুদ্ধে হয় তাহলে সে আল্লাহর হামদ ও সবর করবে। সারকথা, মালিকানা যার সিদ্ধান্ত তার; এখানে নাক গলানোর কার কি অধিকার আছে?

বক্ষ্যমাণ পুস্তিকাখানা মনোযোগ সহকারে পাঠ করলে ইনশাআল্লাহ কোন প্রকার বিপদ-আপদ, কষ্ট-দুঃখে আল্লাহর সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কোন প্রকার অভিযোগ আমাদের দিলের মধ্যে সৃষ্টি হবে না এবং আমরা আমাদের অমূল্য সম্পদ ঈমানকে হেফাযত করতে পারব ইনশাআল্লাহ।

-মুফতী মনসূরুল হক

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “বিপদ-আপদে সান্তনা”

Your email address will not be published. Required fields are marked *